Menu

Press Release 2016 – Day 5

বেঙ্গলউচ্চাঙ্গসংগীতউৎসব২০১৬

২৮.১১.২০১৬
চৌরাসিয়ার বাঁশির সুরে শেষ হলো বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীতউৎসব-২০১৬
রাতের গভীরতার সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছিল মানুষ। অন্যান্য পরিবেশনা উপভোগের পাশাপাশিপণ্ডিত হরিপ্রসাদ চৌরাসিয়ার বাঁশির সুরে মুগ্ধ হওয়ার ব্যাকুলতা যখন তুঙ্গে, তখন রাতের শেষ প্রহর।
বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব ২০১৬- এর সমাপনী রাতে বনানীর আর্মি স্টেডিয়াম কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় সংগীতপ্রেমী দর্শক-শ্রোতার ভিড়ে। রাতভর বিভিন্ন শিল্পীর পরিবেশনা শেষে মঞ্চে আসেন পণ্ডিত হরিপ্রসাদ চৌরাসিয়া। অপেক্ষমান হাজার হাজার দর্শক-শ্রোতার করতালির মধ্য দিয়ে বাঁশিতে ফুঁদেনকিংবদন্তী এই শিল্পী। উপস্থিতহাজারও দর্শক যেন মুহূর্তেই বুঁদ হয়ে যান সুরের মায়ায়।এভাবেইসুরের মাধুর্যে এ বছরের মতোপর্দা নামে উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবের।
পাঁচ দিনব্যাপী বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবের পঞ্চম ওশেষ দিনের এ আয়োজন শুরু হয় ২৮ নভেম্বর সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় বনানীর আর্মিস্টেডিয়ামে।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই দলীয় কণ্ঠসংগীত পরিবেশন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগ।সমবেতকণ্ঠেরাগভূপালীপরিবেশনকরেনতারা।এসময়তবলায়তালদেনস্বরূপহোসেনওজাকিরহোসেন।সংগীতপরিবেশনাশেষহলেশিল্পীবৃন্দেরহাতেউৎসবেরসম্মাননাস্মারকতুলেদেনবাংলাদেশেনিযুক্তসাবেকভারতীয়রাষ্ট্রদূতদেবমুখার্জী।শিল্পীদেরপক্ষেস্মারকগ্রহণকরেনঢাকাবিশ্ববিদ্যালয়েরসংগীতবিভাগেরচেয়ারম্যানড. লিনাতাপসী।
এরপর বেঙ্গলপরম্পরাসংগীতালয়েরশিক্ষার্থীবৃন্দ দলীয়সেতার পরিবেশন করেন।শিল্পীরাহলেননিশিতদে, সম্যদে, আশিসনারায়ণসরকার, প্রসেনজিৎমণ্ডল, আহম্মেদইমতিয়াজহুমায়ুন, টি.এম. সেলিমরেজা, খন্দকারনাজমুসসাকিব, রিংকুচন্দ্রদাস, মেহরিনআলম, জ্যোতিব্যানার্জী, জাহাঙ্গীরআলমশ্রাবণওমোহাম্মদকাওছার।সেতার, তবলাওগিটারেরসম্মিলিতসুরেতারারাগচারুকেশীপরিবেশনকরেন। তবলায় ছিলেন প্রশান্ত ভৌমিক ও সুপান্থ মজুমদার।
বাদ্যশেষেতাদেরহাতেসম্মাননাস্মারকতুলেদেনজাতীয়কারুশিল্পপরিষদের সহ-সভাপতিরুবিগজনবী।
বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব ২০১৬-এর আনুষ্ঠানিক সমাপনী ঘোষণা করা হয় এরপরই। অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারপারসন স্যার ফজলে হাসান আবেদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সম্মানিত শিক্ষাবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এমেরিটাস ড. আনিসুজ্জামান। মঞ্চে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মান্যবর মেয়র আনিসুল হক এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মান্যবর মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান জনাব আবুল খায়ের।
শুরুতেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এমেরিটাস ড. আনিসুজ্জামান উৎসবে আগত শিল্পীদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন,‘আমাদের দেশে উচ্চাঙ্গসংগীতের চর্চা যখন স্তিমিত হতে যাচ্ছিল তখন এই উৎসব সে চর্চাকে আবার উজ্জীবিত করেছে। যা আমাদের জাতীয় চেতনায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে।’
ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারপারসন স্যার ফজলে হাসান আবেদ তাঁর বক্তব্যেরশুরুতেসদ্যপ্রয়াতলেখকসৈয়দশামসুলহককেশ্রদ্ধাভরেস্মরণকরেন।তিনিবলেন,‘আমাদেররক্তেশুদ্ধসংগীতেরধারাবইছে।এইভূখণ্ডথেকেএকসময়ওস্তাদআলীআকবর, ওস্তাদআলাউদ্দিনখাঁ, পণ্ডিতরবিশংকরেরমতোশিল্পীরজন্মহয়েছে।এইউৎসবচলমানথাকলেপুনরায়আমরাবিশ্বমানেরশিল্পীপাবো।’

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মান্যবর মেয়র আনিসুল হক আয়োজকদেরপ্রতিকৃতজ্ঞতাব্যক্তকরেন।দেশেরসংগীতশিল্পকেআরওএগিয়েনিতেতিনিসংগীতপ্রযোজকদের অনুরোধ করেনশিল্পীদেরন্যায্যপাওনাদেওয়ার জন্য।তিনিবলেন,‘শিল্পীরাপারেনএকটিদেশেরমননেপরিবর্তনআনতে।তাইতাঁদেরযথাযোগ্যসম্মানযেনআমরাদিতেপারি।
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মান্যবর মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনবেঙ্গলফাউন্ডেশনেরচেয়ারম্যানআবুলখায়েরেরপ্রস্তাবেসাড়াদিয়েপুরানঢাকার১২টিসংগীতবিদ্যালয়পরিচালনারভারনিতেতাকেঅনুরোধকরেনএবংসাংস্কৃতিককেন্দ্রগড়েতোলারজন্যপর্যাপ্তসাহায্যকরারওআশ্বাসদেন।মৌলবাদিঅপশক্তিপ্রতিরোধেএইউৎসবকেএকটিশক্তিশালীউদ্যোগউল্লেখকরেতিনিবলেন,‘আমাদেরমাননীয়প্রধানমন্ত্রীরযোগ্যনেতৃত্বেবাংলাদেশএগিয়েযাবে।কোনঅপশক্তিএইঅগ্রযাত্রারুখতেপারবেনা।’
স্কয়ার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী বক্তব্যের শুরুতেইসবাইকেধন্যবাদজানান।উৎসবেরসঙ্গেথাকতেপেরেগর্বপ্রকাশকরেতিনিবলেন,‘ভবিষ্যতেঅন্যান্যআরওবড়উৎসবআমরাআপনাদেরউপহারদেব।’
বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান জনাব আবুল খায়ের বক্তব্যেরশুরুতেতিনিসদ্যপ্রয়াতলেখকসৈয়দশামসুলহক,হোলিআর্টিজানেনিহতদুইপুলিশকর্মকর্তাসহসম্প্রতিঘটেযাওয়ামৌলবাদিআক্রমণেনিহতদেরস্মরণকরেআগতসবাইকেএকমিনিটনিরবতাপালনকরতেঅনুরোধকরেন।অতঃপরতিনিউৎসবেরসহযোগীপ্রতিষ্ঠানব্র্যাকওমাছরাঙ্গাটেলিভিশনসহউৎসবসংশ্লিষ্টসবাইকেধন্যবাদজ্ঞাপনকরেন।তিনিএইউৎসবকেবাংলাদেশেরভাবমূর্তিউন্নয়নেরএকটিমাধ্যমহিসেবেউল্লেখকরেন।সুষ্ঠুভাবেঅনুষ্ঠানআয়োজনেসহায়তাকরারজন্যমাননীয়প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রীওসংস্কৃতিমন্ত্রীসহবাংলাদেশসেনাবাহিনীওবাংলাদেশপুলিশেরপ্রতিকৃতজ্ঞতাজ্ঞাপনকরেন জনাব আবুল খায়ের।তিনিপ্রধানমন্ত্রীকেঅনুরোধকরেনযেনদেশেকমপক্ষেতিনহাজারসিনেমাহলতৈরিকরেদেওয়াহয়।এছাড়াওদেশেরপ্রান্তিকপর্যায়েপর্যাপ্তখেলারমাঠওসাংস্কৃতিকক্লাবগড়েতোলারআহ্বানজানান।তিনিবলেন,‘আমাদেরদেশেএকটাবড়সাংস্কৃতিককেন্দ্রগড়েতুলতেচাইআমরা।যেখানেশুধুসাংস্কৃতিককর্মকাণ্ডহবে।’বক্তব্যেরশেষেতিনিআসছেজানুয়ারিমাসেতিনরাতধরেসুফিগানেরউৎসবকরারঘোষণাদেন।
সমাপনীঅনুষ্ঠানশেষেঅতিথিদেরহাতেউৎসবেরসম্মাননাস্মারকতুলেদেনতিনি।

দিনের তৃতীয় পরিবেশনা ছিল পণ্ডিতশিবকুমারশর্মার। তিনি সন্তুরে রাগ যোগ বাজিয়ে শোনান।
পরিবেশনা শেষে শিল্পীর হাতে উৎসবের সম্মাননা স্মারক তুলে দেন ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারপারসন স্যার ফজলে হাসান আবেদ।
পরবর্তী পরিবেশনায় খেয়াল শুনিয়ে দর্শক-শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন কুমারমারদুর। তিনি পুরিয়া কল্যাণ ও কিরওয়ানিতে ভজন পরিবেশন করেন।
পরিবেশনা শেষে শিল্পীর হাতে উৎসব স্মারক তুলে দেনস্বনামধন্য লেখক আনিসুল হক।
খেয়ালেরপরসেতারপরিবেশনা নিয়েমঞ্চেআসেনপণ্ডিতকুশলদাস।সেতারেরতারেকৌশিকানাড়ারাগতোলেনতিনি।তাঁরসঙ্গেতবলায়ছিলেনশুভঙ্করবন্দোপাধ্যায়।পরিবেশনাশেষেপণ্ডিতকুশলদাসের হাতেউৎসবেরসম্মাননাস্মারকতুলেদেনশিল্পীমুস্তফামনোয়ার।
রাতের সপ্তম পরিবেশনায় দর্শকদের খেয়ালে মুগ্ধ করেনআরতীআঙ্কালিকর।তাকে তবলায়সঙ্গদেনরোহিতমজুমদার।প্রথমে তিনি রাগ যোগ কোষ পরিবেশন করেন। পরবর্তীতে‘সাজনা ক্যায়সে মে আয়ু তেরে পাস’ গানেমিশ্র খাম্বাজে ঠুমরী পরিবেশন করেন।
পরিবেশনা শেষে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম শিল্পীর হাতে উৎসবের সম্মাননা স্মারক তুলে দেন।
পঞ্চম ও সমাপনী দিনের সর্বশেষ পরিবেশনা ছিল পণ্ডিতহরিপ্রসাদচৌরাসিয়ার। তিনি বাঁশিতেরাগ প্রভাতী ও রাগ জৈৎ বাজিয়ে শোনান।তারপর ফোক ধুন বাজিয়ে তিনি শেষ করেন তাঁর পরিবেশনা।সঙ্গেতবলায়তালদেনশুভঙ্করবন্দোপাধ্যায়। পাখাওয়াজে ছিলেন পণ্ডিত ভবানী শঙ্কর। বাঁশিবাজিয়ে শিল্পীকে সহযোগিতা করেছেনদেবপ্রিয় রনদ্বীপ ও বিবেক সোনার এবং তানপুরায় ছিলেন অভিজিৎ কুণ্ডু।
পরিবেশনা শেষে শিল্পীর হাতে উৎসবের সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।
বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব ২০১৬-এর নিবেদক স্কয়ার গ্রুপ। আয়োজন সর্মথনে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড। অনুষ্ঠানে সম্প্রচার সহযোগী ছিল মাছরাঙা টেলিভিশিন। মিডিয়া পার্টনার আইস বিজনেস টাইমস। আতিথেয়তা সহযোগী হিসেবে ছিল র্যা ডিসন হোটেল। সার্বিক সহযোগিতায় বেঙ্গল গ্রুপ। অনুষ্ঠান আয়োজন হয়েছেবেঙ্গল ডিজিটাল, ম্যাংগো, বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয় ও পারফেক্ট হারমনি প্রোডাকশনস্ সিঙ্গাপুরের সহযোগিতায়। ইভেন্ট ব্যবস্থাপনায় ছিল ব্লুজ কমিউনিকেশনস।
উপমহাদেশ তথা বিশ্বে র্সবাধিক বড় পরিসরে আয়োজিত উচ্চাঙ্গসংগীতের এ আসরটি এ বছর উৎর্সগ করা হয় সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের (১৯৩৫-২০১৬) স্মৃতির উদ্দেশ্যে।
ছবিঃ বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের সৌজন্যে

thumbnail Arati Ankalikar

thumbnail Arati Ankalikar

thumbnail Pandit Hari Prasad Chaurasia

thumbnail Pandit Hari Prasad Chaurasia

thumbnail Pandit Hari Prasad Chaurasia

thumbnail Pandit Hari Prasad Chaurasia

thumbnail Pandit Hari Prasad Chaurasia

thumbnail Pandit Kushal Das

thumbnail Pandit Kushal Das

thumbnail Pandit Kushal Das