Menu

সুরের মূর্ছনায় মেতেছে বেঙ্গল উৎসবের প্রথম রাত

thumbnail

অনেক নাটকীয়তার জট কাটিয়ে অবশেষে শুরু হয়েছে বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত উৎসবের ষষ্ঠ আসর। ‘সঙ্গীত জাগায় প্রাণ’ এই স্লোগানে আজ (মঙ্গলবার) সন্ধ্যা থেকেই ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে এবারের উৎসবের পর্দা ওঠে। প্রতিবারের মতো ভোর ৫টা পর্যন্ত চলবে উৎসব।

আর্মি স্টেডিয়ামের বদলে এবারে আসর বসেছে ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে। সন্ধ্যা থেকেই আসতে শুরু করেন সঙ্গীতপিপাসুরা। ক্রমেই বাড়ছে ভিড়। শ্রোতাদের অভিনন্দন জানাতে বেহালায় আভোগী রাগ তুলে আনেন ভারতের সঙ্গীতজ্ঞ ড. এল সুব্রামানিয়াম। শিল্পীর সঙ্গে মৃদঙ্গমে সঙ্গত করেন রামামূর্তি ধুলিপালা, তবলায় ছিলেন পণ্ডিত তন্ময় বোস এবং মোরসিংয়ে ছিলেন সত্যসাই ঘণ্টাশালা।

অনেক নাটকীয়তার জট কাটিয়ে অবশেষে শুরু হয়েছে বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত উৎসবের ষষ্ঠ আসর। ‘সঙ্গীত জাগায় প্রাণ’ এই স্লোগানে আজ (মঙ্গলবার) সন্ধ্যা থেকেই ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে এবারের উৎসবের পর্দা ওঠে। প্রতিবারের মতো ভোর ৫টা পর্যন্ত চলবে উৎসব।

আর্মি স্টেডিয়ামের বদলে এবারে আসর বসেছে ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে। সন্ধ্যা থেকেই আসতে শুরু করেন সঙ্গীতপিপাসুরা। ক্রমেই বাড়ছে ভিড়। শ্রোতাদের অভিনন্দন জানাতে বেহালায় আভোগী রাগ তুলে আনেন ভারতের সঙ্গীতজ্ঞ ড. এল সুব্রামানিয়াম। শিল্পীর সঙ্গে মৃদঙ্গমে সঙ্গত করেন রামামূর্তি ধুলিপালা, তবলায় ছিলেন পণ্ডিত তন্ময় বোস এবং মোরসিংয়ে ছিলেন সত্যসাই ঘণ্টাশালা।

 

View Full Article